মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

জেলা প্রশাসকের বার্তা

একথাসুবিদিত যে, ই-গভর্নান্স এখন সময়ের দাবী। এই ই-গভর্নান্স প্রবর্তনেরঅন্যতম মূল ভিত্তি হলো অবাধ তথ্য প্রবাহের নিশ্চয়তা বিধান। এটা অনস্বীকার্যযে, তথ্য প্রযুক্তির বিস্ময়কর উদ্ভাবন ‘ইন্টারনেট’অবাধ তথ্য প্রবাহেঅভাবনীয় গতি সঞ্চার করেছে। ইন্টারনেটের মাধ্যমে স্বল্পতম সময়ে ও ন্যূনতমব্যয়ে দৈনন্দিন তথ্য সর্বত্র আদান-প্রদান সম্ভব হচ্ছে। আমরা অত্যন্তআনন্দিত যে, www.dinajpur.gov.bd শীর্ষক ওয়েব পোর্টাল চালুর মাধ্যমে জেলা প্রশাসন, দিনাজপুর তথ্য প্রযুক্তির মহাযজ্ঞে সামিল হলো।

মাঠপ্রশাসনের নিউক্লিয়াস জেলা প্রশাসকের কার্যালয়। জেলা প্রশাসক জেলায়সরকারের নির্বাহী প্রতিভূ। তাঁর কার্যালয় সরকারের ফোকাল পয়েন্ট হিসেবেকার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। এক কথায়, জেলায় গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিককার্যক্রমের পাদপীঠ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়। এ কার্যালয়ের প্রধান প্রধানকার্যাবলীর মধ্যে প্রণিধানযোগ্য হলো - জেলা ভূমি রাজস্ব ও ভূমিব্যবস্থাপনা, আইন-শৃংখলা, অপরাধ নিবৃত্তিমূলক ফৌজদারি ব্যবস্থা, স্থানীয়সরকার, জাতীয় ও স্থানীয় নির্বাচন, পাবলিক পরীক্ষা, ট্রেজারি, সার-বীজ-জ্বালানী ব্যবস্থাপনা, বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দিবস উদযাপন, আন্তর্জাতিক পাসপোর্ট, বিভিন্ন লাইসেন্স/পারমিট ইস্যু ও নবায়ন, মোবাইলকোর্ট পরিচালনা, জেলার উন্নয়নমূলক ও আন্তঃবিভাগীয় কার্যক্রমের সমন্বয় সাধনইত্যাদি। এ সকল কার্যাবলীর সাথে সংশ্লিষ্ট বিপুল সংখ্যক ধ্বজাধারীদের(Stakeholders) দ্রুততম সময়ে ও ন্যূনতম ব্যয়ে সেবা প্রদান করতে জেলাপ্রশাসন দায়বদ্ধ। এছাড়া তথ্য প্রযুক্তির ক্রমবর্ধমান ব্যবহারের মাধ্যমেই-গভর্নান্স বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে জেলা প্রশাসনের রয়েছে তাৎপর্যপূর্ণভূমিকা। সন্দেহ নেই, ই-গভর্নান্স বাস্তবায়নের অভিযাত্রায় www.dinajpur.gov.bd শীর্ষক ওয়েব পোর্টাল স্থাপন একটি গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি।

আমরাআশা করি, এই ওয়েব পোর্টালটি জনগণের তথ্য জানার অধিকার নিশ্চিত করতে যেমনতাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা রাখবে, তেমনি তাঁদের সেবাপ্রাপ্তি হবে সহজতর ও স্বল্পব্যয়সাপেক্ষ। এই পোর্টালটি থেকে বিভিন্ন প্রয়োজনীয় সরকারি ফর্ম ডাউনলোড করাযাবে, জানা যাবে পাসপোর্টসহ বিভিন্ন লাইসেন্স/পারমিট প্রাপ্তিরনিয়মাবলী/শর্তাবলী। এছাড়া জানা যাবে, কোন শাখা হতে কি কি সেবা কিনিয়মে/পদ্ধতিতে এবং কত সময়ে প্রদান করা হয়, পাওয়া যাবে ইজারাবিজ্ঞপ্তি/নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি এবং বিভিন্ন নোটিশ/অফিস আদেশ ইত্যাদি। এছাড়াসময়ের পরিসরে এই পোর্টালে আরো অনেক বিভাগের/দপ্তরের বিশেষতঃ উন্নয়নমূলককার্যক্রমের তথ্য সন্নিবেশন করা হবে। এর ফলে নাগরিকের বিভিন্নসেবাপ্রাপ্তিই কেবল সহজতর হবে না, প্রশাসনের গতিশীলতা, স্বচ্ছতা ওজবাবদিহিতাও অনেকাংশে নিশ্চিত হবে।

সুনির্দিষ্টনাগরিক সেবা ও জেলার উন্নয়ন কার্যক্রম সম্পর্কিত তথ্যের পাশাপাশি এই ওয়েবপোর্টালটিতে বিস্তৃত পরিসরে তুলে ধরা হয়েছে দিনাজপুরের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সাহিত্য, সংস্কৃতি, প্রাচুর্য আর সম্ভাবনা। শিক্ষক-ছাত্র-গবেষক-পর্যটক অথবাযে কোন অনুসদ্ধিৎসু ব্যক্তি দিনাজপুর সম্পর্কে তাঁদের অনেক প্রশ্নের জবাবখুঁজে পাবেন এই ওয়েব পোর্টাল থেকে।

যেকোন ওয়েব সাইটের সাফল্য নির্ভর করে নাগরিকের চাহিদা মেটাতে এর সক্ষমতারউপর। জেলা প্রশাসন, দিনাজপুর নাগরিকের চাহিদার প্রতি দৃষ্টি রেখে ওয়েবপোর্টালটির নিয়মিত হালনাগাদ ও উৎকর্ষ সাধনে প্রয়াস অব্যাহত রাখবে।পোর্টালটির উন্নয়নে ও উৎকর্ষ সাধনে সচেতন ব্যক্তি/মহলের সুচিন্তিত মতামতকৃতজ্ঞতার সাথে গৃহীত হবে। জনগণের নিকট তাঁদের কাঙ্খিত সেবা পৌঁছে দিতেসুশাসন প্রতিষ্ঠায় এবং স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা সুনিশ্চিতকরণে আমাদের এপ্রয়াস সকলের সহযোগিতায় সার্থক ও সফল হবে - এ আমাদের বিশ্বাস এবং প্রত্যাশা।